মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
মাহাসিংদোগ্রী বৌদ্ধ মন্দিরের ঐতিহাসিক পটভূমি মাহাসিংদোগ্রী বৌদ্ধ মন্দির কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ থেকে ৫ কিঃ মিঃ দুরে অবস্থিত। এই বৌদ্ধমন্দির কক্সবাজার বায়তুশ শরফ কম্পপ্লেক্স এর পাশে রাখাইন পল্লীতে অবস্থিত। রিক্সা ও ব্যাটারী চালিত গাড়ী যোগে যাওয়া যায়। যাতায়াত ভাড়া প্রায় ৩০-৪০ টাকা।
মৎস্য অবতরণ ও পাইকারী মৎস্য বাজার মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র কক্সবাজার সদর উপজেলার পশ্চিমে ০৮ কিঃ মিটার দুরে বিমান বন্দর সড়কে অবস্থিত। রিক্সা ও ব্যাটারী চালিত গাড়ী নিয়ে যাওয়া যায়। ভাড়া আনুমানিক ৫০-৬০ টাকা।
পাতাবাড়ী বৌদ্ধ বিহার কক্সবাজার সদর হতে বাস যোগে উখিয়া ষ্টেশনে পৌছতে হবে। উখিয়া সদর হতে সি এন্ড জি অথবা রিক্সা যোগে পূর্ব দিকে ১ কিঃ মিঃ গেলে পাতাবাড়ী বৌদ্ধ বিহারে যাওয়া যাবে।
বড়ঘোপ সমূদ্র সৈকত স্থল পথে কক্সবাজার জেলা হতে চকরিয়া ও পেকুয়া হয়ে মগনামা-বড়ঘোপ ফেরী ঘাট ডেনিস যোগে কুতুবদিয়া চ্যানেলে পার হয়ে বড়ঘোপ ঘাট হতে রিক্সা যোগে বড়ঘোপ বাজার পশ্চিমে সমুদ্র সৈকত যাওয়া যায়।
বড়ঘোপ সমূদ্র সৈকত স্থল পথে কক্সবাজার জেলা হতে চকরিয়া ও পেকুয়া হয়ে মগনামা-বড়ঘোপ ফেরী ঘাট ডেনিস যোগে কুতুবদিয়া চ্যানেলে পার হয়ে বড়ঘোপ ঘাট হতে রিক্সা যোগে বড়ঘোপ বাজার পশ্চিমে সমুদ্র সৈকত যাওয়া যায়।
রাখাইন পাড়া সি.এন.জি.ও রিক্সা নিয়ে যাওয়া যায়।
চৌফলদন্ডী-খুরুশকুল সংযোগ সেতু কক্সবাজার শহর থেকে মাত্র ৮কিলোমিটার উত্তরে চৌফলদন্ডী ইউনিয়নে নির্মিত।সিএসজি, বাস ও রিক্সা দিয়ে আসতে মাত্র ২০ মিনিট সময় লাগে।
কাকারা শাহওমর মাজার চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কের চিরিঙ্গা বাস ষ্টেশন নেমে জীপ বা সিএনজি যোগে মাজারে যাওয়া যায়।
মনোমুগ্ধকর গোলাপ বাগান চট্টগ্রাম কক্সবাজার মহাসড়কের বরইতলী ইউনিয়নে প্রবেশ করার সাথে সাথে রাস্তার দুই ধারে প্রচুর গোলাপ বাগান লক্ষ্য করা যাবে। রাস্তার পূর্ব দিকে শুধু গোলাপ আর গোলাপের সমারোহ।
১০ ডুলাফকির মাজার বিভিন্ন যানবাহনের মাধ্যমে
১১ চিংড়ি রপ্তানি জোন বিভিন্ন যানবাহনের মাধ্যমে
১২ লবণ রপন্তানি জোন বিভিন্ন যানবাহনের মাধ্যমে
১৩ বার্মিজ মার্কেট কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ হতে ৪ কিলোমিটার দুরে এই বার্মিজ মার্কেট।যেকোন যানবাহন দিয়ে যাওয়া যায়।
১৪ মাতামুহুরী নদী সিএনজি বা পদব্রজে
১৫ মগনামা ঘাট সড়ক পথে- ঢাকা-চট্রগ্রাম-কক্সবাজার হতে আরাকান মহাসড়ক পথে সরাসরি চকরিয়া হয়ে মটর গাড়ী যোগে উক্ত দর্শনীয় স্থানে যাওয়া যায়। জলপথে ঢাকা-চট্রগ্রাম-খুলনা-নারায়নগঞ্জ- চাদপুর-কক্সবাজার হতে জলপথে নৌকা,ইঞ্জিন বোট ও ট্রলারের মাধ্যমে মগনামা ঘাটে যাওয়া যায়।বিঃদ্রঃ-রেল পথে পেকুয়া উপজেলা পরিষদ এর সাথে কোন যোগাযোগ নাই।
১৬ ইনানী সি বীচ উখিয়া থেকে সিএনজি এবং মাইক্রো নিয়ে যাওয়া যায়।
১৭ কানা রাজার সুড়ঙ্গ উখিয়া উপজেলা হতে সিএনজি এবং রিক্সা নিয়ে যাওয়া যায়। উখিয়া ১৩ কিলোমিটার।
১৮ আদিনাথ মন্দির সড়ক পথে- ঢাকা ঢাকা-চট্রগ্রাম-কক্সবাজার হতে আরাকান মহাসড়ক পথে সরাসরি চকরিয়া থানা রাস্তার মাথা হয়ে বদরখালী ব্রীজ পার হয়ে কালারমা ছড়া অথবা শাপলাপুর রাস্তা দিয়ে সরাসরি মহেশখালী উপজেলা প্রশাসকের কার্যালয়/উপজেলা পরিষদ । কক্সবাজার সদর হতে কস্তুরা ঘাট / ৬নং ঘাটা / উত্তর নুনিয়া ছড়া সরকারী জেটী ঘাট হতে স্প্রীট বোট বা কাটের বোটে করে মহেশখালী জেটিঘাটা/আদিনাথ জেটিঘাট সেখান থেকে রিক্স/ মটর গাড়ী যোগে উক্ত দর্শনীয় স্থান সমূহে যাওয়া যায়। জলপথে ঢাকা-চট্রগ্রাম-খুলনা-নারায়নগঞ্জ- চাদপুর-কক্সবাজার হতে জলপথে নৌকা,ইঞ্জিন বোট ও ট্রলারের মাধ্যমে মহেশখালী জেটিঘাট/আদিনাথ জেটিঘাট সেখান থেকে রিক্সা/ মটর গাড়ী যোগে উক্ত দর্শনীয় স্থান সমূহে যাওয়া যায়। বিঃদ্রঃ-রেল পথে মহেশখালী উপজেলা পরিষদ এর সাথে কোন যোগাযোগ নাই।
১৯ বরইতলী মৎস্য খামার বরইতলী ইউনিয়ন একতাবাজারের পশ্চিম পাশে অবস্থিত।
২০ কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত সড়ক পথে

সর্বমোট তথ্য: ৩৭